কুড়িগ্রামের ডিসির বিরুদ্ধে কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাটে মানববন্ধন

প্রকাশিত: ৪:২৯ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৫, ২০২০
কুড়িগ্রামের ডিসির বিরুদ্ধে মানববন্ধন

কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাট প্রতিনিধি: বাংলাদেশের কুড়িগ্রামে মধ্যরাতে বাড়িতে ঢুকে স্থানীয় একজন সাংবাদিককে ধরে নিয়ে গিয়ে জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট এক বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে।

এর প্রতিবাদে কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাটের বিভিন্ন স্থানে মানববন্ধন হয়েছে।

মানববন্ধন

মুরাদ কুড়িগ্রাম থেকেঃ কুড়িগ্রাম জেলার চর রাজিবপুর প্রেসক্লাবের উদ্যেগে সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম এর মুক্তি ও জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীন এর শাস্তির দাবিতে উপজেলা প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সকল সাংবাদিকসহ, সামাজিক, সাংস্কৃতিক,ব্যক্তিবর্গের এই কর্মসূচি পালিত হয়।এ সময় প্রেস ক্লাবের সভাপতি কুদ্দুস বিশ্বাসের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমানের সঋলনায় বক্তব্য রাখেন প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ সবুর ফারুকী, সাংবাদিকদের মধ্যে চ্যানেল এস টিভির রফিকুল ইসলাম, এশিয়ান টেলিভিশনের মুরাদুল ইসলাম,তারিকুল ইসলাম তারা, দিনকাল পত্রিকার সহিজল এবং কালের কন্ঠ শুভসংঘের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক সোহেল রানা স্বপ্ন প্রমুখ। এ সময় বক্তারা বলেন সাংবাদিক আরিফুলকে অন্যায় ভাবে রাত ১২ টায় বাসা থেকে তুলে নেওয়াকে একদম নেক্কার জনক হেয় প্রতিপন্ন করা হয়েছে।তাই অনতিবিলম্বে আরিফুল ইসলামকে মুক্তি ও সুলতানা পারভীন কে প্রত্যাহার ও তার দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তি দাবি করেন।

ডিসির বিরুদ্ধে মানববন্ধন

লালমনিরহাট: সাংবাদিক আরিফুল ইসলামকে মধ্য রাতে গ্রেফতার করে রাতভর নির্যাতন ও অাদালত বসিয়ে সাজা দেয়ার প্রতিবাদে লালমনিরহাটে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন স্থানীয় সাংবাদিকরা।

রোববার (১৫ মার্চ) সকালে জেলা শহরের মিশন মোড়ে এ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

প্রবীণ সাংবাদিক ড. শফিকুল ইসলাম কানুর সভাপতিত্বে উক্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সাংবাদিক অাব্দুর রব সুজন, অাহমেদুল ইসলাম মুকুল, খোরশেদ অালম সাগর, সুলতান হোসেন, মাজেদ মাসুদ, অাসাদুজ্জামান সাজু, নিয়াজ অাহেম্মদ শিপন, শরিফুল ইসলাম রতন, মিজানুর রহমান দুলাল, ইলিয়াস বসুনিয়া পবন, জাহাঙ্গীর অালম শাহীন, হেলাল কবির প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে জেলা প্রশাসকের বিচার দাবী করেন।

মাদক বিরোধী টাস্কফোর্সের অভিযানের কথা বলা হলেও শুক্রবার রাতের ওই অভিযানে একমাত্র সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম ছাড়া আর কাউকে আটক করা বা সাজা দেয়া হয়নি।