বাদল আশরাফ এর বিখ্যাত কবিতা, করোনা কার্নিভাল

প্রকাশিত: ১১:১৬ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৩০, ২০২০
বদল আশরাফ

করোনা কার্ণিভাল
বাদল আশরাফ

আমাদের জীবন জুড়ে উৎসবের নেই শেষ
জানিনা এ আমাদের কোনো সৌভাগ্য
অথবা সাত জনমের দুর্ভাগ্য কিনা-
চলছে করোনার মহোৎসব!
তবে এই উৎসব নিয়মমাফিক ফি বছর নয়
পালিত হচ্ছে শুধু একটিবারের জন্য
কোনো প্রস্তুতি ছাড়া!

চারুকলা চুপচাপ
তবুও বিচিত্র সাজে সেজে উঠেছি সবাই-
কত রঙ আর মডেলের মাস্ক
গ্লাভস, পিপিই
সুগন্ধির বদলে সেনিটাইজার মেখে
নির্বিকার আত্মহুতিতে মগ্ন
জোন্স টাউনের অগনিত গর্দভ সন্তের মত!

আমরা দেখেছি চিরচেনা উৎসবে ছুটি
এক থেকে তিনদিন,
এই উৎসবে চলছে ছুটি লাগাম বিহীন-
বন্ধ স্কুল-কলেজের গেট
মাদ্রাসা-মসজিদ
বন্ধ অফিস-কারখানা-আদালত
নদীপথ-আকাশ
বন্দর, বাজার-হাট, সমুদ্র সৈকত, জনপথ!

অনাহূত এই উৎসবে ঘরে কাটে দিনরাত
লাগাতার অবসর
বসে বসে খাওয়া
নির্জনে বিনোদন, গান-কলতান
ভালোবাসা, মন দেয়া নেয়া মেনে ব্যবধান-
ক্রমে ক্রমে সবকিছুরই নিদারুণ অবসান!

এই উৎসবে হবেনা আর কোনো উৎসব যোগ-
হবেনা বিজয়, , রিও কিংবা ভ্যালেন্টাইন
এ যেনো প্রকৃতির বড় নিষ্ঠুর আইন,
হবেনা মজলিশ
কাবার তাওয়াফ, পূজা-অর্চনা
বিবাহ, খেলাধুলা
হবেনা জনসভা, ওয়াজ মহফিল,
যত বড় বিপ্লবী হও চলবেনা কোনো মিছিল!

এখন জন্মের সুখে ভাগাভাগি নেই
প্রিয় মানুষেরা হয়ে ওঠে অচেনা, অভাজন
মৃত্যুতে নেই বিলাপ কিংবা সৎকার আয়োজন!

এই উৎসব যেনো বহু পূর্বের ওকাজ মেলা
বিবিধ ব্যঞ্জনে ভারী-
লেখা হলো কবিতা প্রচুর
গাওয়া হলো শিহরণ জাগানিয়া গান
পাশাপাশি
চলছে মৃত্যু-মহামারি প্রতিরোধে উপাত্ত সন্ধান!

এই উৎসবে নিরব দাতা, বিধাতাও মৌন নিথর-
বৃক্ষের শাখা থেকে নেমে আসে বিড়ালেরা
আপ্লুত হয়ে ওঠে
অগত্যা বেঁচে যায়
উপহার, দান-অনুদান আর সৌখিন ব্যভিচারে!

করোনার উৎসবে আজ ম্রিয়মাণ চাঁদ
তবুও জাগে না বিবেক
লোভের আগুনে পুড়ে যদিও অসহায় পঞ্চ প্রতাপ!

৩০ এপ্রিল২০২০