বাংলাদেশী প্রথম এভারেস্ট পর্বত আরোহী ও সাংবাদিক মুসা ইব্রাহীম

প্রকাশিত: ৮:৫১ পূর্বাহ্ণ, মে ১০, ২০২০
বাংলাদেশী প্রথম এভারেস্ট পর্বত আরোহী ও সাংবাদিক মুসা ইব্রাহীম

মোঃ মাসুদ রানা রাশেদ, লালমনিরহাট: মুসা ইব্রাহীম (জন্ম: ১৯৭৯) একজন বাংলাদেশী পর্বতারোহী এবং সাংবাদিক, যিনি প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে মাউন্ট এভারেস্ট জয় করেছেন। সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী তিনি ২৩ মে ২০১০ তারিখে বাংলাদেশ সময় ভোর ৫টা ৫মিনিটে এভারেস্ট শৃঙ্গ জয় করেন। ঈশ্বরী পাড়ওয়ালকে উদ্ধৃত করে কাঠমান্ডুতে বাংলাদেশের উপ-মিশনপ্রধান নাসরিন জাহান মুসা ইব্রাহীমের এভারেস্ট জয়ের তথ্য নিশ্চিত করেন।
মুসা ইব্রাহীম-এঁর জন্ম: ১৯৭৯।
জাতীয়তাঃ বাংলাদেশী।
পেশাঃ পর্বতারোহী, সাংবাদিক।
পরিচিতিঃ প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে মাউন্ট এভারেস্ট জয়।
জন্ম ও শিক্ষা জীবনঃ বিদ্যালয়: ঠাকুরগাঁও চিনিকল উচ্চ বিদ্যালয়, ঠাকুরগাঁও। নটরডেম কলেজ, ঢাকা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা।
কর্মজীবনঃ মুসা ইব্রাহীম নর্থ আলপাইন ক্লাব বাংলাদেশ নামক পর্বতারোহন ক্লাবের মহাসচিব এবং ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক হিসেবে কর্মরত আছেন। এর আগে তিনি বাংলাদেশী বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল টুয়েন্টিফোরে জ্যেষ্ঠ সংবাদদাতা হিসেবে এবং বাংলাদেশী ইংরেজি দৈনিক দ্য ডেইলি স্টারের সহকারী সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। পর্বত আরোহণ ও অ্যাডভেঞ্চার বিষয়ক নানা আয়োজনে তরুণ-তরুণীদের অংশগ্রহণ বাড়াতে ২০১১ সালে তিনি প্রতিষ্ঠা করেন এভারেস্ট একাডেমী।
পর্বত জয় ও এভারেস্টের চূড়ায়ঃ মাউন্ট এভারেস্ট চূড়ায় বাংলাদেশের পতাকা হাতে মুসা ইব্রাহীম (বামে)। ২০১০ সালের ২৩ মে মুসা ইব্রাহীম বাংলাদেশ সময় সকাল ৫টা ১৬মিনিটে এভারেস্টের চূড়ায় উঠেন এবং বাংলাদেশের পতাকা উড়ান।
কিলিমানজারো জয়ঃ ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১১ মুসা ইব্রাহিম আফ্রিকা মহাদেশের সর্বোচ্চ পর্বত কিলিমাঞ্জারো’র চূড়া জয় করেন। তাঁর সঙ্গী ছিলেন নিয়াজ মোরশেদ পাটওয়ারী ও এমএ সাত্তার। তবে শুধু মুসা ও নিয়াজ ১৯হাজার ৩শত ৪০ফুট উচ্চতার কিলিমাঞ্জারো পর্বতের চূড়ায় বাংলাদেশের পতাকা উড়িয়েছেন।
কার্স্টেনজ পিরামিড পর্বত শৃঙ্গ জয়ঃ ১৩ জুন ২০১৭, মুসা এবং দু’জন ভারতীয় পর্বতারোহী ইন্দোনেশিয়ার পাপুয়া প্রদেশে কার্স্টেনজ পিরামিড পর্বত শৃঙ্গ জয় করে নামার পথে বেজ ক্যাম্পে আটকা পড়েন। পরে হেলিকপ্টার তাদেরকে উদ্ধার করে ইন্দোনেশিয়ার টিমিকা বিমানবন্দরে নিয়ে আসে।
উল্লেখ্য যে, মুসা ইব্রাহীমের জন্ম ১৯৭৯ সালে লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়নের গন্ধমরুয়া বসিনটারী গ্রামে হলেও তিনি লালমনিরহাটের সদর উপজেলার মোগলহাটের পরিচয় দেন। তাঁর বাবা আনসার আলী, মাতা বিলকিস বেগম। স্ত্রী উম্মে সরাবন তহুরা। সন্তান ওয়াসি ইব্রাহীম।
লেখক: সাংবাদিক ও সম্পাদক, সাপ্তাহিক আলোর মনি, লালমনিরহাট। মোবা: ০১৭৩৫৪৩৮৯৯৯