হারাটি ইউনিয়নে মানবিক সহায়তা কার্ডের তালিকায় অনিয়মের অভিযোগ

প্রকাশিত: ৯:০৩ অপরাহ্ণ, মে ১২, ২০২০

মোঃ মাসুদ রানা রাশেদ, লালমনিরহাট: লালমনিরহাট জেলার লালমনিরহাট সদর উপজেলার হারাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সচিবের বিরুদ্ধে পরিবার ভিত্তিক মানবিক সহায়তা কার্ডের তালিকা প্রস্তুতকরণে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। আজ মঙ্গলবার ১২ মে দুপুরে লালমনিরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর অভিযোগ করেন হারাটি ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যবৃন্দ।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, লালমনিরহাট সদর উপজেলার ৫নং হারাটি ইউনিয়ন পরিষদে দূর্যোগকালীন পরিবার ভিত্তিক মানবিক সহায়তার ১হাজার ৬শত ৬০টি কার্ড বরাদ্দ দেয়া হয়। হারাটি ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের সদস্য ও সংশ্লিষ্ট ৩জন নারী সদস্যাসহ
মোট ১২জনকে ৪৬টি করে কার্ড বরাদ্দ পায়। হারাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলামের নির্দেশে ওই ১২জন সদস্য তাদের নিজ নিজ ওয়ার্ডের ৪৬জনের ভোটার আইডি কার্ড হারাটি ইউনিয়ন পরিষদের সচিব সিরাজুল হকের কাছে জমা দেন। পরে নিয়ম বহির্ভূতভাবে হারাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম ও সচিব সিরাজুল হক মিলে ওই ১২জন সদস্যের ওয়ার্ড ভিত্তিক নাম বাতিল করে পছন্দ মতো নিজস্ব লোকজনের নাম দিয়ে তালিকা প্রস্তুত করে লালমনিরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে জমা দেয়। এতে বঞ্চিত হয় প্রকৃত উপকারভোগী। এ ব্যাপারে হারাটি ইউনিয়ন পরিষদের ৫নং ওয়ার্ড সদস্য শাহিনুর রহমান সরকার জানান, আমাদের দেয়া প্রকৃত উপকারভোগীদের নামের তালিকা বাদ দিয়ে চেয়ারম্যানের নিজস্ব লোকজনের নাম দিয়ে তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে। যে তালিকায় রয়েছে অনেক বিত্তবানদের নাম। ওই অনিয়নের ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত নারী সদস্যা ফরিদার বেগম সাংবাদিকদের বলেন, চেয়ারম্যানের নির্দেশে প্রকৃত উপকারভোগীর নামের ভোটার কার্ড ইউপি সচিবের কাছে জমা দেই। কিন্তু কৌশলে চেয়ারম্যান ও সচিব ওই নাম বাদ দিয়ে তালিকায় তাদের নিজস্ব লোকজনের নাম দিয়েছে। এতে কর্মহীন গরীব মানুষরা সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবে।
এ ব্যাপারে হারাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যার রফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, নামের তালিকা করেছে ইউনিয়নের সচিব। এ ব্যাপারে তিনিই ভালো জানেন। তবে এ ব্যাপারে হারাটি ইউনিয়ন পরিষদের সচিব সিরাজুল হক সাংবাদিকদের কাছে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।