করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) পরিস্থিতি মোকাবেলায় সাধারণ মানুষের পাশে লালমনিরহাট জেলা পুলিশ

প্রকাশিত: ১২:১০ অপরাহ্ণ, মে ২৬, ২০২০

মোঃ মাসুদ রানা রাশেদ, লালমনিরহাট: করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ পরিস্থিতি মোকাবেলায় পুলিশ সদস্যদের নিয়ে নানামুখী কাজে সাধারণ মানুষের পাশে লালমনিরহাট পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা। আর এসব কাজ সব মহলে ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে। মার্চ মাসের শুরুতে দেশে প্রথম করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পরপরই লালমনিরহাট পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা-এঁর নেতৃত্বে লালমনিরহাট জেলা পুলিশের সদস্যরা মাঠে নামেন। বিদেশ ফেরত/ বহিরাগতদের মাধ্যমে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ঝুঁকির কথা বিবেচনা করে পুলিশ সদস্যরা তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হোম কোয়ারেন্টিনের জন্য লাল নিশান লাগানোর পাশাপাশি স্বাস্থ্য বিধি মেনে ঘরে থাকার এবং প্রতিবেশিদেরকে সর্তক থাকতে বলেন। সংক্রমণের শুরুর দিকে ও লকডাউনের পর কর্মহীন দরিদ্র মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। পবিত্র মাহে রমজান মাসে তিনি ডিউটিরত পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে পথে পথে ইফতারে অংশগ্রহণ করে সকল পুলিশ সদস্যদের মনোবল বাড়াতে সাহস যুগিয়েছেন।
এছাড়াও গণপরিবহন নিয়ন্ত্রণ ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার ব্যাপারে ব্যাপক প্রচার অব্যাহত রেখেছেন। এসবের পাশাপাশি তিনি হাট-বাজার, দোকান-পাট নির্দ্দিষ্ট সময়ের পর বন্ধ করতে পুলিশ টহল জোরদার করেছিলেন। হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা ও আক্রান্তদের এলাকার লকডাউনকৃত বাড়িগুলোর ওপর নজরদারিসহ বিভিন্ন কার্যক্রম চলমান রয়েছে। সেই সাথে পবিত্র ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে গরীব ও দুস্থ্যদের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন। এছাড়াও করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের বাড়িতে ঈদ উপহার সামগ্রী পৌচ্ছে দিয়েছেন। এদিকে পবিত্র ঈদ উল ফিতরের কেনাকাটা যাতে শৃঙ্খলা বদ্ধ ভাবে হয় তার জন্য মার্কেটে মার্কেটে পুলিশ টহলের ব্যবস্থা করে ক্রেতা-বিক্রেতাদের ব্যবসা পরিচালনায় ভীতি মুক্ত পরিবেশ সৃষ্টি করেছেন। অপরদিক অগ্নিদগ্ধ লিজার জন্য ঈদ উপহার নিয়ে হাজির হয়েছিলেন তার বাড়িতে। যা বিরল দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে মানসপটে।