জম্মু ও কাশ্মীরে বিছিন্ন বাদীদের হামলায় নিহত বিজেপি নেতা ও তাঁর পরিবার

প্রকাশিত: ৩:০৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ৯, ২০২০

অনলাইন ডেস্ক: বুধবার রাতে জম্মু ও কাশ্মীরের বান্দিপোরা জেলার বিজেপি সভাপতি শেখ ওয়াসিম ও তাঁর বাবা এবং ভাইকে হত্যা করল জঙ্গিরা। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার রাত ন’টা নাগাদ স্থানীয় থানার কাছে খবর আসে একটি দোকানের বাইরে ওই বিজেপি নেতা ও তার পরিবারের ওপর এ হামলা চালানো হয়েছে। এরপর ঘটনাস্থলে পৌঁছে পুলিশ আধিকারিকরা দেখতে পান জঙ্গিদের গুলিতে ওই দোকানের বাইরেই রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছেন শেখ ওয়াসিম, তাঁর বাবা এবং ভাই। দ্রুত তাঁদেরকে নিকটবর্তী বান্দিপোরা জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকেরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই ঘটনার জেরে রীতিমতো উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে এলাকা।

এই ঘটনার কথা জানতে পেরে, বুধবার গভীর রাতেই টেলিফোনে এই হামলার বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি পাশাপাশি জেলার বিজেপি সভাপতি শেখ ওয়াসিমের পরিবারকে ও সমবেদনা জানান। বুধবার রাতে এই ঘটনার কথা টুইট করে জানান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং। তিনি লেখেন,”টেলিফোনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ওয়াসিম বারি কে যেভাবে নৃশংস ভাবে হত্যা করা হয়েছে সে বিষয়ে খোঁজখবর নেন। তিনি ওয়াসিমের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।”

জঙ্গী সন্ত্রাসের এই ঘটনার বিষয়ে গতকাল রাতেই টুইট করে জানায় কাশ্মীর জোন পুলিশ। কাশ্মীর জোন পুলিশের পক্ষ থেকে লেখা হয়, “জঙ্গিরা বান্দিপোরায় বিজেপি কর্মী ওয়াসিম বারির উপর গুলি চালায়।নির্বিচারে গুলি চালানোর সময় ওয়াসিম বারির পাশাপাশি সেই গুলি গিয়ে লাগে তাঁর বাবা বশির আহমেদ ও ভাই ওমর বশিরের গায়েও। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, তবে তিনজনই সেখানে মারা যান।”

এদিকে এই ঘটনার পরে ওই বিজেপি নেতার নিরাপত্তা জনিত গাফিলতি নিয়ে প্রশ্ন উঠছে বিভিন্ন মহলে। অন্যান্য দিনের মতো বুধবার রাতেও ওয়াসিম বাড়ির সঙ্গে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন তার ৮ জন দেহরক্ষীও। প্রশ্ন উঠছে, তা সত্বেও কিভাবে জঙ্গিদের গুলিতে নিহত হলেন ওয়াসিম বারি ও তাঁর পরিবার? সূত্রের খবর অনুযায়ী, ইতিমধ্যেই কর্তব্যে গাফিলতির অভিযোগে ওই ৮ নিরাপত্তা রক্ষীকে গ্রেফতার করেছে পুলিস।
সূত্র: টিডিএন বাংলা ডেস্ক