কুড়িগ্রাম

প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন।

প্রকাশিত: ৬:০৮ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১১, ২০২১

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রাম জেলার চর রাজিবপুর উপজেলা শিবেরডাংঙ্গী মাওলানাপাড়া গ্রামের মোঃ আব্দুল বারেক এর মেয়ে মোছাঃ ফাতেমা আক্তার (রুমি)(১৯) বিয়ের দাবীতে তার প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে উঠে গত শুক্রবার বেলা ১১ ঘটিকার সময়।

বালিয়ামারী ব্যাপারীপাড়া গ্রামের আবদুল্লাহ আল মাহমুদ (খুরুম) এর ছেলে সজীবের বাড়িতে প্রেমিকা রুমি উঠে।

রুমির কাছে সাক্ষাৎকার নিলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন আমার সাথে দীর্ঘ দিনের সম্পর্ক এবং আমাকে বলেছিলো আমি তোমাকে বিয়ে করবো আমি তোমাকে নিয়ে সংসার করবো কিন্ত আমি সজীব কে বিয়ের কথা বললে সে আমাকে অস্বীকৃতি জানায় এবং আমাকে ভুলে যেতে বলে।
তাই আমি সজীবের বাড়িতে এসে ঘরের ভিতরে আশ্রয় নেই, কিন্তু সজীবের মা ও তার বড় ভাই ঘরের পিছনের দরজা ভেঙ্গে ঘরের ভিতর প্রবেশ করে আমাকে টেনে-হিঁচড়ে মারধর করে রাস্তায় ফেলে দেয়, সেখান থেকে আমাকে সাবেক ইউপি সদস্য এবং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের নেতা মোঃ ফরিজল ও রাজিব পুর উপজেলা ও ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ সাইদুর রহমান আমাকে উদ্ধার করে ফরিজল মেম্বারের বাড়িতে নিয়ে যায়।

পরবর্তিতে ঘটনার সত্যতা যাচাই করতে ছেলের বাড়িতে গেলে সজীবের মা ও বড় ভাই ঘর থেকে ফেলে দেওয়া কথা শিকার করেন।

ঐ দিন সন্ধ্যায় এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গদের নিয়ে ঘটনাটি সমাধান করার জন্য বসলে প্রেমিক সজীব উপস্থিত না থাকায় ঘটনাটির সমাধান করা সম্ভব হয়নি বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে রাজিবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ এর সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন অভিযোগ পেয়েছি , তদন্ত করে ব্যাবস্থা করা হবে।