তালিবানদের দখল প্রক্রিয়া থামাতে বদ্ধপরিকর আফগানিস্তান 

প্রকাশিত: ৯:২৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ৯, ২০২১

অনলাইন ডেস্ক: আফগানিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা প্রধান মঙ্গলবার জানান, আফগানিস্তানে সাম্প্রতিক তালিবানদের দ্রুত আঞ্চলিক সাফল্যের পেছনের রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র পরিচালিত বিদেশী সেনাদের প্রত্যাহার সম্পর্কিত বেদনাদায়ক কিছু সমস্যাI

প্রেসিডেন্ট বাইডেন যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটি থেকে ২০ বছরের অভাবনীয় সম্পৃক্ততার পর, সকল আমেরিকানদের আফগনিস্তান ত্যাগ করার নির্দেশ দিয়েছেনI পহেলা মে তারিখে শুরু হওয়া প্রত্যাহার প্রায়ই শেষ হওয়ার পথে, তবে আগস্টের শেষ নাগাদ প্রত্যাহার পুরোপুরি সম্পন্ন হবেI প্রত্যাহার কর্মসূচি শুরু হওয়ার পর, আফগান সরকারি বাহিনী, যুক্তরাষ্ট্র বিমান বাহিনীর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন সহায়তা না পাওয়ায়, তালিবানরা ৪০০ ‘র অধিক শহর দখল করে নেয় এবং সেনারা হয় পিছু হটে, নতুবা দলগতভাবে আত্মসমর্পণ করেI

আফগানিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা পরামর্শদাতা, হামদাল্লাহ মুহিব বলেন, বিমানবাহিনী পশ্চাৎমুখী হলে ও সেনাদের ওপর অতিরিক্ত চাপ বৃদ্ধি পেলে, আমাদের বেশ কিছু জটিলতা দেখা দেয়I শুক্রবার অনেককে বিস্মিত করে যুক্তরাষ্ট্র, বাগরাম বিমানঘাঁটি থেকে রাত্রিকালীন প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয়, যাতে আফগানদের মধ্যে অনিশ্চয়তা ও বিশৃঙ্খলা শুরু হয়I রাজধানী কাবুল থেকে ৬০ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত এই বিমানঘাঁটিটি তালিবান ও আল কাইদাদের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের অভিযানে সবিশেষ ভূমিকা রেখেছেI

জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মঙ্গলবার সাংবাদিকদের কাছে তালিবানদের সরকার-পন্থী বাহিনীর কাছে আত্মসমর্পনের কথা অস্বীকার করেনI তিনি বলেন তাঁর কথায়, “গোলাবারুদ শেষ হয়ে যাওয়ায়, সরবরাহ কমে যাওয়ায় তারা তাদের পোস্ট ছাড়তে বাধ্য হয়, কোনো অবস্থাতেই কোনো সেনা তালিবানদের কাছে আত্মসমর্পণ করেনি”I