বিআরডিবি।

ভবিষ্যৎ অন্ধকার বিআরডিবির ৬ হাজার কর্মীর।

প্রকাশিত: ৯:০৩ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৭, ২০১৯
বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি)

নুরুজ্জামান আহমেদ, ঢাকা।
নিয়মিত বেতন পাচ্ছেন না বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের (বিআরডিবি) বিভিন্ন কর্মসূচিতে কর্মরত প্রায় ছয় হাজার কর্মী। বিআরডিবি প্রান্তিক পর্যায়ে যে ঋণ দেয়, তা গ্রহীতাদের কাছ থেকে সুদসহ আদায় করেন এসব কর্মী। আর সুদের একটি অংশ বেতন হিসেবে পান তাঁরা। ‘আয় থেকে দায় মেটানোর’ এই ব্যবস্থার অবসান, চাকরি স্থায়ী করাসহ কয়েক দফা দাবিতে বিআরডিবির বিভিন্ন কর্মসূচিতে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তিন মাস ধরে আন্দোলন করছেন।

বিআরডিবিতে দুই ধরনের কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছেন। রাজস্ব খাতের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বেতন-ভাতাসহ সরকারি সব সুযোগ-সুবিধা পান। বর্তমানে রাজস্ব খাতে পদ আছে ৩ হাজার ৪০৬টি। আর কর্মসূচির মাধ্যমে উন্নয়ন খাতের কর্মীরা ঋণের সুদ থেকে একটি অংশ বেতন হিসেবে পান। এর বাইরে অন্য কোনো সুযোগ-সুবিধা পান না। বিআরডিবি কর্মচারী সংসদের (সিবিএ) হিসেবে, বর্তমানে উন্নয়ন খাতে প্রায় ছয় হাজার কর্মী আছেন।